তারেক আজিজ

১৬ বছর আগে এই দিনে মুহুর্মুহু গ্রেনেডের বিকট বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে ঢাকার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ। মানুষের আর্তনাদ আর কাতর ছোটাছুটিতে তৈরি হয় এক বিভীষিকা। গোটা দেশ স্তব্ধ হয়ে পড়ে ওই হামলায়। আজ সেই ২১ আগস্ট, নৃশংস হত্যাযজ্ঞের ভয়াল দিন।

২০০৪ সালের এই দিনে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা শেখ হাসিনার সমাবেশে অতর্কিতে গ্রেনেড হামলা চালানো হয়। মারা যান আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদক আইভি রহমানসহ ২৪ জন। আহত হন শেখ হাসিনাসহ পাঁচ শতাধিক নেতা-কর্মী। সাংবাদিকেরাও আহত হন।

দিবসটি সামনে রেখে গতকাল শনিবার
মহেশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে
জাতীয় শ্রমিক লীগ মহেশখালী উপজেলা শাখার আযোজনে উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা শ্রমিক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব সরওয়ার আলমের সভাপতিত্বে।যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনজুর আলমের সঞ্চালনায় ২১ আগস্ট, নৃশংস হত্যাকাণ্ডের আলোচনা সভা র‍্যালী ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
জাতীয় শ্রমিক লীগ মহেশখালী উপজেলা শাখার আজকের আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম,মোঃ ইসমাইল,
শাপলাপুর ইউনিয়ন সভাপতি দেলোয়ার হোসন (দোলাল),কালারমারছড়ার সাধারণ সম্পাদক দরত উল্লাহ, ধলঘাটা ইউনিয়ন সভাপতি আনোয়ার হোসেন পারভেজ,সাধারণ সম্পাদক তোফায়েল আহম্মদ,মোহাম্মদ রশিদ, দপ্তর সম্পাদক জসিম উদ্দিন, ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক দিল মোহাম্মদ,
শ্রমবিষয়ক সম্পাদক ইলিয়াস খান, পৌর কৃষক লীগের সভাপতি শামসুল আলম, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক, আওয়ামী মটর শ্রমিক লীগের সভাপতি,মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন ,সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিন,সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ রফিক, আজিজ সিকদার, হিমন দত্ত, আব্দুল মান্নান, আব্দুল মালেক,মোঃ মুজিব,
আহবায়ক বাবুর্চি শ্রমিক লীগের রবিউল আলম,হোসেন,শিদুল দে,নুরুল আজিম,জাকির হোসেন,নুরুল আবছার সহ অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।