নিজেস্ব সংবাদদাতা:

চট্টগাম আল্ জামিয়া আল্ ইসলামিয়া পটিয়া মাদরাসার হেফজ বিভাগের “মোহাম্মদ সা’দ বিন ইমরান” নামের এক ছাত্র গত ৩ দিন দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রের বাবা, চট্টগাম নুরানী মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড এর পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ও পটিয়া ধলঘাট নুরানী মুয়াল্লিম প্রশিক্ষণ সেন্টারের সহকারী প্রশিক্ষক, হাফেজ মাওলানা শাহী ইমরান নোমানী পটিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। ডায়েরি নং- ১২৭২, তারিখ ২৫/০৮/২০২০ ইংরেজী।

পরিবার ও জিডি সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ শে আগস্ট রোজ সোমবার বাদ মাগরিব হতে “মোহাম্মদ সা’দ” নিখোঁজ রয়েছে। সে চট্টগাম আল্ জামিয়া আল্ ইসলামিয়া পটিয়া মাদরাসার হেফ্জ বিভাগের আবাসিক ছাত্র হিসেবে পড়ালেখা করত। নিখোঁজ হওয়ার দিন প্রতিদিনের মত দুপুর ১ টায় বাসা হতে দুপুরের খাবার খেয়ে মাদরাসার উদ্দেশ্যে বের হয়ে যথারীতি হেফ্জ বিভাগে গিয়ে পড়া আদায় করে। রাত ৯টার পর ছেলে বাসায় খাবার খেতে না আসায় খোঁজখবর নিতে তার বাবা তার শিক্ষকের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলেন। তখন ওই শিক্ষক জানান, মোহাম্মদ সাদ বিকাল ৪টায় মাদরাসা হতে বের হয়ে আর আসেনি।

এর পর থেকেই মোহাম্মদ সা‘দ এর পরিবার সব আত্মীয়স্বজনের বাড়িতে খোঁজ নিয়েও তার সন্ধান পায়নি। হাফেজ মাওলানা শাহী মোহাম্মদ ইমরান নোমানী বলেন, বিভিন্ন জায়গায় খুঁজেও তার কোন সন্ধান মিলছে না। যদি কোন ব্যক্তি ছেলেটির খবর পেয়ে থাকেন নিম্নের নাম্বারে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। সন্ধান দাতাকে উপযুক্ত পুরস্কার দেওয়া হবে। মোবাইলঃ ০১৮১৬৯০৩৯৩৫

এ বিষয়ে পটিয়া থানার কর্তব্যরত অফিসার (ডিউটি অফিসার) বলেন, ওই ছাত্রকে উদ্ধারের জন্য আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি, একই সঙ্গে তার পরিবারের লোকজনও বিভিন্ন এলাকায় খোঁজখবর নিচ্ছেন।