গত ৫নভেম্বর মহেশখালীর কালারমারছড়া ইউনিয়নে সংঘটিত আলাউদ্দিন হত্যা মামলায়, দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার বিভিন্ন প্রকল্পে ব্যাপক দুর্নীতির প্রতিবাদ এবং ক্ষতিগ্রস্ত চাষী ও বাস্তচ্যুতদের যথাযথ ক্ষতিপূরণের দাবিতে আন্দোলন করে আলোচিত হওয়া ছাত্রনেতা ফজলে আজিম মোঃ ছিবগতুল্লাহকে আসামী করার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী ও মহেশখালী জাগ্রত ছাত্র সমাজ।

১২নভেম্বর শুক্রবার বিকাল ৪টায় কালারমারছড়া ইউনিয়নের ঝাপুয়া বাজারে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে এলাকার ছাত্র, যুবক ও বৃদ্ধসহ সর্বস্তরের মানুষ অংশগ্রহণ করে।

মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে অংশ নেওয়া বক্তারা বলেন, “এসপিএম প্রকল্পে ব্যাপক দুর্নীতি ও ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সাথে অন্যায়ের প্রতিবাদ করায় কালারমারছড়া ইউনিয়নের দুর্নীতিবাজ চেয়ারম্যান তারেক বিন ওসমান শরীফের রোষানলের শিকার হয়েছেন ছিবগতুল্লাহ। ইতোমধ্যে তারেকের শাশুড়ী ও তার ব্যাংক হিসাব জব্দ করা হয়েছে এতে বুঝা যায় তার অবৈধ কালো টাকার উৎস কোথায়! যেদিন আলাউদ্দিন হত্যার শিকার হন, সেদিন একই সময় ছিবগাতুল্লাহ চট্টগ্রামে অবস্থান করছিলেন যার প্রমাণস্বরুপ সিসিটিভির ভিডিও ফুটেজ ইতোমধ্যেই ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। প্রতিবাদীর মুখ বন্ধ করার জন্য মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর এই কৌশল চেয়ারম্যান পরিবারের বহু পুরনো কৌশল। সামনে ইউপি নির্বাচনকে ঘিরে স্বীয় স্বার্থ চরিতার্থ করতেই তিনি কালারমারছড়ার শান্তিপূর্ণ পরিবেশকে অশান্ত করে তুলছেন।
মহেশখালীর সর্বস্তরের মানুষের কাছে এটি দিবালোকের মতোই সত্য। আমরা প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানাই, অনতিবিলম্বে এই ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা থেকে ছিবগাতুল্লাহর নাম প্রত্যাহার করে প্রকৃত খুনিদের বিচারের আওতায় আনুন। সেই সাথে ভবিষ্যতে যেন আর নিরপরাধ কাউকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসাতে না পারে, সেজন্যে এই মামলাবাজের বিরুদ্ধে দৃঢ় পদক্ষেপ নিন।

মনিরুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথি ছিলেন মহেশখালী উপজেলা আ.লীগের সিনিয়র সদস্য সরোয়ার আজিম, কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মোহাম্মদ জাকারিয়া। আরো উপস্থিত ছিলেন ওমর গনি এমইএস কলেজের ছাত্রনেতা ফজলে আজিম হিজবুল্লাহ, মোহাম্মদ সাকাওয়াত, মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন, আজিজুল হক, মৌলানা আব্দুল হক, মো. তোহা, রহমত উল্লাহ রামু, মো. জুনাইদ হানিফ, আব্দুল আল ফয়েজ, শাকিল মাহমুদ, মোহাম্মদ শাহিদ ও ফাহিম সাবিক প্রমুখ।