দ্বীপ নিউজ ডেস্ক:

ভারী বৃষ্টির ফলে সৃষ্ট বন্যায় ক্ষতির শিকার হয় সারাদেশের বিভিন্ন নিম্নাঞ্চল। তেমনি কক্সবাজারের বৃহত্তর ঈদগাহ থানার নদীর বন্যায় প্লাবিত হয়ে যায় জালালাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের ৫ হাজার মানুষের থাকার ঘর। ক্ষতি হয় বিভিন্ন যাতায়াতের রাস্তারও।

কক্সবাজার সদর উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ঈদগাঁহ বাজার টু ফরাজী পাড়া দৈর্ঘ্য ৮০ ফিট আর প্রস্থ ১০ ফিট সড়কের মনজুর মৌলভীর দোকান হইতে ০৫ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নুরুল আলমের বাড়ি পর্যন্ত ডাবল ইট বসিয়ে দিয়ে পোকখালী ইউনিয়ন সহ প্রায় ২০ হাজার লোকের চলাচলের ব্যবস্থা করে দিলেন জালালাবাদ ইউনিয়নের সম্মানিত চেয়ারম্যান জননেতা ইমরুল হাসান রাশেদ।

জালালাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইমরুল হাসান রাশেদ দ্বীপ নিউজকে জানান, আমার ইউনিয়ন বন্যায় প্লাবিত হয়ে বেশ ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছি। কক্সবাজার-৩ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব সাইমুম সরোয়ার কমল এমপির নির্দেশনায় আমরা সমগ্র ইউনিয়ন বাসী উক্ত ক্ষতি কাটিয়ে ওঠতে একযোগে কাজ করে যাচ্ছি, এবং আমার ইউনিয়ন বাসী আমাকে যথেষ্ট  সাহায্য করতেছে ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা ও বেড়িবাঁধ পূর্ণ নির্মাণে।

তিনি আরো জানান, ঈদগাহ থকে ফরাজী পাড়ার রাস্তা ইতিমধ্যে চলাচলের উপযোগী করে তুলেছি, ২০ হাজার মানুষের যাতায়াতে আর কোন বাঁধা নেই।