শোকবার্তা..

মাতারবাড়ীর কৃতি সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. ফয়জুল করিমের ১৯ তম মৃত্যু বার্ষিকীতে শোক ও শ্রদ্ধা জানিয়েছেন মাতারবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ।

১৯৬৬ এর ৬ দফা আন্দোলন থেকে শুরু করে ৬৯ এর গণ-অভ্যুত্থান এবং ৭১ এর স্বাধীনতা যুদ্ধের সাথে এড. ফয়জুল করিম ওতোপ্রোতোভাবে জড়িত ছিলেন। স্বাধীনতা যুদ্ধের পর তিনি মাতারবাড়ীতে প্রথম রিলিফ কমিটির চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এছাড়া মহেশখালী থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বেশ অনেক বছর। জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত তিনি লালন করে গেছেন স্বাধীনতার চেতনা এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শ। ১৬ ই জুলাই ২০০১ সালে তিনি ৬৬ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন।

আজ ১৬ ই জুলাই তাঁহার ১৯ তম মৃত্যু বার্ষিকীতে শোক এবং শ্রদ্ধা জানিয়েছেন মাতারবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে, সভাপতি আলহাজ্ব জিএম ছমি এবং সাধারণ সম্পাদক এসএম আবু হায়দার।

শোকবার্তায় সভাপতি আলহাজ্ব জিএম ছমি উদ্দিন জানায়, বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. ফয়জুল করিম শুধু মাতারবাড়ীর গর্ব নয় মহেশখালী উপজেলার গর্ব। তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধে সাথে ওতোপ্রোতো ভাবে জড়িত ছিলেন, তাঁরাই হচ্ছে স্বাধীনতা যুদ্ধের আসল হিরো এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রকৃত নেতা।

এছাড়া, উক্ত শোকবার্তায় মাতারবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম আবু হায়দার জানায়, মাতারবাড়ীর ইতিহাসে প্রথম পর্যায়ের কয়েকজন কিংবদন্তির মাঝে এডভোকেট ফয়জুল করিম। তিনি, তার জীবনে পুরোটা সময়ের মধ্যে দেশের জন্যে দীর্ঘদিন তৎকালীন ব্রিটিশ এবং পাকিস্তানিদের হাতে কারাবন্দী ছিলেন।

পরিশেষে, মাতারবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক সহ অন্যানরা এডভোকেট ফয়জুল করিমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।