আ ন ম হাসান , মহেশখালীঃ

মহেশখালী উপজেলার বড় মহেশখালী ইউনিয়নে দুই পক্ষের মারামারিতে ০৬ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এরমধ্যে ০৪ জনের অবস্থা আশংকা জনক হওয়ায় আহতদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকী দুইজন মহেশখালী হাসপাতালের জরুরী বিভাগ থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ী ফিরেছে বলে জানা যায় ৷

ঘটনার সূত্রে জানা যায়, সোমবার (২২ ফেব্রয়ারী) দুপুর আনুমানিক ১২.০০টার সময় বড় মহেশখালীস্থ সাতঘরিয়া পাড়ায় পৈত্রিক বাড়ী ভিটি বন্টনের জের ধরে নুরুল কবির গং এর সাথে জসিম উদ্দীন গং এর মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। সকাল সাড়ে ১১ ঘটিকার সময় হাজী আবুল ছৈয়দের পুত্র নুরুল কবির এবং নুরুল কবিরের পুত্র মিশুক সহ পৈত্রিক খতিয়ানভুক্ত জমিতে কাজ করা অবস্থায় অপর গ্রুপের হাজী আবু ছৈয়দের পুত্র জসিম উদ্দীন, নেজাম উদ্দীন, জয়নাল বাধা প্রদানের এক পর্যায়ে নুরুল কবির ও পুত্র মিশুক গালিগালাজ করলে জসিম উদ্দীন, নেজাম, জয়নাল হাতে থাকা লাঠিসোটা দিয়ে বেদম মারধর করে এবং চুরি দ্বারা মিশুককে আঘাত করে। একইরুপ নুরুল কবির, মিশুকের কাছে থাকা লাঠিসোটা ও হাতে দা ছুরি দ্বারা জসিমকে আঘাত করে। মারামারির ঘটনায় উভয়পক্ষের এলোপাতাড়ী ছুরিকাঘাতে মিশুক (২৬) নুরুল কবির (৫০) জসিম উদ্দীণ (৩৩) নেজাম উদ্দীন (৩২)। মারীতে উভয়পক্ষের ০৬ বছর আহত হয়। তারমধ্যে ০৪ জন গুরুত্বর আঘাতপ্রাপ্ত হয়।

এ ব্যাপারে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আবদুল হাই এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, মহেশখালী থানায় একটি মামলা হয়েছে। মামলার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।