এম বশির উল্লাহ:

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি প্রতিটি ঘরহীন মানুষকে ঘর তৈরি করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী মুজিববর্ষ উপলক্ষে সরকারের একটি বড় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সারা দেশের ৮ লাখ ৮২ হাজার ৩৩টি ঘরহীন পরিবারকে আধপাকা টিন-শেড ঘর নির্মাণ করে দেওয়ার পর আবারও আগামী জুন মাসে আরো ৫৩ হাজার ভুমিহীন মানুষকে বাড়ি ঘর করে দিবে বলে ঘোষণা দিয়েছে সরকার।

এই ঘোষণার পর আশায় বুক বেধেছে মহেশখালীর এক দরিদ্র গৃববধু ছালেহা বেগম তিনি বলেন, আমি কক্সবাজারের দ্বীপ উপজেলা মহেশখালীর প্রত্যন্ত এলাকা ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের তেলি পাড়া গ্রামের একজন গৃহবধু।

গৃহবধু ছালেহা জানায়,, গত ১০ বছর ধরে ঝুপড়ি ঘরে অতিব কষ্টে ৩ টি মেয়ে সন্তান নিয়ে খুব কষ্টে দিন যাপন করছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার একটি বাড়ি পাওয়ার জন্য অনেক বার জনপ্রতিনিধিদেরকে বলছি তবে কোন কাজ হয়নি। আমার স্বামী একজন দিন মজুর শ্রমিক গ্রামের সড়কে চানাবুট বিক্রি করে কোন মতে সংসার চালায়। তার পক্ষে বাড়ি তৈরী করা স্বপ্রে মতো ব্যাপার।

প্রতি র্বষা মৌসুম আসলে আমাদের কষ্ট দেখার মানুষ থাকেনা। যে জমিতে থাকি সেটাও খাস জমি। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুল আবেদন জানায় সরকারী একটি বাড়ি পাওয়ার যোগ্য নয় কি আমি।

গৃহবধু ছালেহা আরো বলেন, আমি বাড়ি পাওয়ার যোগ্য হলে আমাকে একটি সরকারী বাড়ি করে দিলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও জেলা প্রশাসক , মাননীয় সংসদ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার সহ সকল নেতৃবৃন্দদের কাছে চির কৃতজ্ঞ থাকবো। মুজিব বর্ষে আমি একটি বাড়ি চাই।