মহেশখালী প্রতিনিধি:

প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে তাদের নাকের ডগায় চলছে কোচিং সেন্টার। করোনা তান্ডবে যেখানে সকল ধরণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ, সেখানে মহেশখালী কলেজের আইসিটি শিক্ষক আবু সরওয়ার রানার কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টারে চলছে কোচিং বাণিজ্য।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মহেশখালী আদালত সড়কের সামনে একটি বাড়ির নীচতলা ভাড়া নিয়ে কলেজ শিক্ষক রানা সহ কয়েকজন যৌথভাবে গড়ে তুলেছেন একটি কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার। কলেজে শিক্ষার্থীদের আইসিটি বিষয়ের শিক্ষক হওয়ার সুবাধে প্রাইভেট পড়তে নানা ভাবে শিক্ষার্থীদের চাপ প্রয়োগ করএম বলে বিভিন্ন শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন। যার কারনে বাধ্য হয়ে শিক্ষার্থীরা প্রাইভেট পড়েন সেখানে।

এই বিষয়ে জানতে কলেজ শিক্ষক রানার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান- তিনি ট্রেইনার নন। তিনি ঐ ট্রেনিং সেন্টারের উদ্যোক্তা। করোনাকালীন ট্রেনিং করান কিনা সেই বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি কোন সদুত্তর দিতে পারেননি এবং তাদের ট্রেনিং সেন্টারে দেখা করতে বলে ফোন কেটে দেন।

এই বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহফুজুর রহমান বলেন, করোনাকালীন কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নিয়ম রয়েছে ৷ অভিযোগের বিষয়ে খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান ৷