নিউজ ডেস্ক:

মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুর থেকে অপহরণ করে মুক্তিপণ চাওয়া শিশু মোঃ সাইমন (৪) কে অপহরণের ৮ ঘন্টার মধ্যে উদ্ধার করেছে, মহেশখালী থানায় সদ্য যোগদান কৃত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল হাই এর নেতৃত্বে মহেশখালী থানা পুলিশের একটি ইউনিট।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত ২৯শে সেপ্টেম্বর রামু থানার গর্জনিয়াস্থ জৈনক তুষারের বাড়ীতে মহেশখালী থানায় সদ্য যোগদান করা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আব্দুল হাই এর নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মহেশখালী থানা পুলিশের একটি ইউনিট অভিযান চালিয়ে শিশু মোঃ সাইমন(৪) কে উদ্ধার করেছে।

এসময় অপহরণ কারী দলের সদস্য রফিক(৩৪) কে, মুক্তি পণের টাকা বিকাশে গ্রহণ করার সময় প্রযুক্তির মাধ্যমে তাকে গর্জনিয়া থেকে গ্রেপ্তার করে।

এই বিষয়ে সদ্যযােগদান করা মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল হাই জানায়, অপহরণের অভিযােগ পাওয়ার পর পূর্ব অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে বিকাশের মাধ্যমে কিছু টাকা পাঠায় অপহরণকারী প্রদত্ত নাম্বারে। যার সূত্র ধরে অল্প সময়ের মধ্যে শিশু সাইমনকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

মহেশখালী থানায় আগে কি হয়েছিল তা না দেখে ভবিষ্যতে কি হবে তা দেখার আহ্বান জানান ওসি। তিনি আরও বলেন পুলিশ জনগণের বন্ধু, একজন প্রকৃত বন্ধু যেভাবে বন্ধুর বিপদে এগিয়ে আসে সেভাবে আমরাও এগিয়ে যাব।

এদিকে পুলিশের সহযােগিতায় নিজের সন্তানকে ফিরে পেয়ে হাজারাে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন শিশু সাইমন এর পিতা-মাতা। তারা বলেন, পুলিশ দেখলে ভয় পেতাম তাদের সহযােগিতা দেখে আমি নিজের ভুল বুঝতে পেরেছি। আমরা মনেকরি পুলিশ আসলেই বিপদগ্রস্ত অসহায় মানুষের বন্ধু।