ছবি: দ্বীপ নিউজ টোয়েন্টিফোর।

এ.কে. রিফাত: (মহেশখালী)

তৃণমূলের ক্রীড়া উন্নয়ন, শিশু কিশোর ও যুবসমাজকে মাদক, সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ থেকে দুরে রাখতে দেশের বিভিন্ন উপজেলায় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী সারা দেশে ৪৯০টি উপজেলায় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের অংশ হিসেবে মহেশখালী উপজেলায় হতে যাচ্ছে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম ৷

১৩ ফেব্রুয়ারি (রবিবার) জাতির পিতার কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের নামে স্টেডিয়াম বাস্তবায়নের লক্ষ্য স্টেডিয়ামের জন্য বরাদ্দ করা জায়গা পরিদর্শন করেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব আব্দুল মালেকের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধি দল ৷ সচিবের প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের প্রকৌশলী মুখলেছুর রহমান, জেলা ক্রীড়া অফিসার মাঈনুদ্দিন মিল্কি, কক্সবাজার জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক এড জসিম উদ্দিন, সদস্য আলী রেজা তসলিম।

প্রতিনিধি দলকে প্রকল্পের জন্য বরাদ্দকৃত জায়গা ঘুরে দেখান মহেশখালী উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ সভাপতি, পৌর মেয়র আলহাজ্ব মকছুদ মিয়া ৷ এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার প্রতিনিধি হিসেবে সাথে ছিলেন গোরকঘাটা ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারী ভূমি কর্মকর্তা মোঃ উল্লাহ ৷

মহেশখালী উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক এম আশরাফুল আজিজ সুজনের সার্বিক তত্বাবধানে অন্যান্যদের মাঝে আরও উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক,আসহাদ উল্লাহ সায়েম ও সাইফুল ইসলাম রায়হান এবং কোষাধ্যক্ষ আ ন ম হাসান ৷

মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) ও সহকারী কমিশনার ভূমি মোঃ সাইফুল ইসলাম জানান, উপজেলা পর্যায়ে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ (৩য় পর্যায়) শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় মহেশখালী জেটির পার্শ্বে গোরকঘাটা মৌজার ১নং সরকারী খাস খতিয়ানভুক্ত ৩ একর জায়গা বরাদ্দ করা হয়েছে ৷

জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের প্রকৌশলী মুখলেছুর রহমান জানান, স্টেডিয়াম নির্মাণ কাজের প্রাথমিক অংশ হিসেবে জায়গা সার্ভে করা হয়েছে ৷ দ্রুত সময়ের মধ্যে স্টেডিয়াম নির্মাণ কাজ শুরু হবে ৷ মূল স্টেডিয়ামে থাকবে ৪৫/৪০ ফিটের একটি তিন তলা ভবন, ৫ স্তরের গ্যালারী, পুরুষ ও মহিলাদের জন্য আলাদা পাবলিক টয়লেট, চারিপাশে ড্রেন, রাস্তা, সীমানা প্রাচীর, স্টেডিয়াম মার্কেট, পার্কিং ব্যাবস্থা সহ নানান সুযোগ সুবিধা থাকবে বলে তিনি জানান ৷

অপরদিকে মহেশখালীতে মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের খবর ছড়িয়ে পড়লে আনন্দ উল্লাস মেতে উঠেন বিভিন্ন পর্যায়ের ক্রীড়াবিদরা ৷ সচেতন মহলের মতে, শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মিত হলে তৃণমূল পর্যায় হতে অনেক ভালো মানের খেলোয়াড় উঠে আসবে, পাশাপাশি ক্রীড়া ক্ষেত্রে মহেশখালীর সন্তানরা অনেক দূর এগিয়ে যাবেন বলে তারা আশাবাদ ব্যাক্ত করেন ৷