উপকূলীয় প্রতিনিধিঃ
কক্সবাজারের মহেশখালীর তরুণ সাংবাদিক, মহেশখালী অনলাইন প্রেসক্লাবের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক দৈনিক আমার সংবাদ ও জয়যাত্রা টেলিভিশনের প্রতিনিধি ফুয়াদ মোহাম্মদ সবুজের অবস্থা শারিরিক ভাবে উন্নতির পথে।
তিনি বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চতুর্থ তলায় চিকিৎসাধীন আছেন। অনলাইন প্রেসক্লাবের অন্যতম সবুজের অসুস্থতার খোঁজ-খবর নিতে ১১ এপ্রিল (রবিবার) রাত ৭ টার সময় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছুটে যান মহেশখালীর কালারমারছড়ার কৃতি সন্তান, কক্সবাজার উপকূলীয় সাংবাদিক ফোরামের সাধারণ সম্পাদ, মহেশখালী অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক পূর্বকোণ -সিপ্লাস টিভির প্রতিনিধি হোবাইব সজীব।
তিনি মহেশখালীর অনলাইন প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দদের পক্ষে সাংবাদিক ফুয়াদ মোহাম্মদ সবুজের চিকিৎসার খোঁজ খবর নেন। সবুজের পরিবারের সদস্যদের স্বান্তনা দেন ও প্রয়োজনে সংগঠনের পক্ষ থেকে সকল প্রকার সহযোগিতা করবেন বলে ও জানান। এসময় মহেশখালীর কৃতি সন্তান হোবাইব সজীব, ওই হাসপাতালের চিকিৎসক ও চট্টগ্রামের স্থানীয় কয়েকজন গণমাধ্যমেকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

গত ৩০ মার্চ এপ্রিল উপজেলার কালারমারছড়া নোনাছড়িস্থ নিজ বাস ভবনে শরীরে জ্বরে কাবু হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রথমে তাকে চট্টগ্রাম সাউথর্দান হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে এক দিন পর চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় হয়। ফুয়াদ মোহাম্মদ সবুজ বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছে। তিনি কয়েকদিনের মধ্যে বাড়ী ফিরতে পারবে বলে তার চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

সাংবাদিক হোবাইব সজীব বলেন, লাজুক প্রকৃতি সাংবাদিক ফুয়াদ মোহাম্মদ সবুজ ভাই পেশাগত কাজে আমার জুনিয়র হলেও ভাই দীর্ঘদিন ধরে মফস্বল সাংবাদিকতা করে আসছেন। তিনি মেধা ও নিজের বুদ্ধিকে কাজে লাগিয়ে এগিয়ে গেছে অনেকদূর। এছাড়া মাঠে-ঘাটে পড়ে থাকা সংবাদ গুলি তুলে আনে। তিনি মফস্বল সাংবাদিকতার জীবন্ত কিংবদন্তি। মহেশখালীর কালারমারছড়ার কৃতিসন্তান সবুজ ভাইয়ের সুস্থতার জন্য সকলের নিকট দোয়া কামনা করেছেন সাংবাদিক হোবাইব সজীব। ###