1. dwipnews24.info@gmail.com : Dwip News 24 :
  2. editor@dwipnews24.com : Newsroom :
মহেশখালী উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি বাণিজ্য শেষ কবে? হারিয়ে যাচ্ছে ত্যাগীরা | দ্বীপ নিউজ
February 5, 2023, 6:24 am
শিরোনাম :
কক্সবাজারের নাজিরারটেক থেকে মাঝিমাল্লা সহ মাছভর্তি ট্রলার নিখোঁজ মহেশখালীতে ওসির নেতৃত্বে অস্ত্র ও মাদক তৈরীর কারখানার সন্ধান: বিপুল পরিমান সরঞ্জামাদি উদ্ধার কাল মাতারবাড়ী আসছেন শায়েখ মুফতি জহিরুল ইসলাম ফরিদী মহেশখালী বাইতুল আমান হেফজখানার দস্তারবন্দী অনুষ্ঠান সম্পন্ন; পাগড়ি পেলেন ৮ হাফেজ ইয়াবা ব্যবসায়ী কর্তৃক সাংবাদিক নুরুল আলম সিকদারকে হত্যার হুমকি: থানায় জিডি কক্সবাজারে আজগুবি তালিকা নিয়ে চলছে চাঁদাবাজি, তালিকা সম্পর্কে জানেনা কোন সংস্থা জেলার সর্বপ্রথম প্রতিষ্ঠিত সদর উপজেলা প্রেসক্লাবের নির্বাচন সম্পন্ন: সভাপতি নূরী, সা-সম্পাদক আলম সাংবাদিক শফিউল্লাহ শফির বিরুদ্ধে মানহানিকর সংবাদে উদ্বেগ জানিয়ে কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের বিবৃতি মহেশখালীর পাহাড়ি গাছে বেঁধে সিএনজি ড্রাইভারের হাতের কব্জি কেঁটে নিল সন্ত্রাসীরা দৈনিক বাংলার বিরুদ্ধে কক্সবাজারে ১০০ কোটি টাকার মানহানি মামলা

মহেশখালী উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি বাণিজ্য শেষ কবে? হারিয়ে যাচ্ছে ত্যাগীরা

  • আপডেটের সময় : রবিবার, নভেম্বর ১, ২০২০
  • 190 ভিউ

নিউজ ডেস্ক:

ব্যক্তি কলঙ্কিত নাকি দল? কমিঠি বাণিজ্য শেষ হবে কবে?

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এশিয়া মহাদেশের প্রাচীনতম সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একটি অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন। ১৯৪৮ সালে ৪ঠা জানুয়ারি বাঙালী জাতির অগ্রদূত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাত ধরেই প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ২৫ টি ধারার গঠনতন্ত্র নিয়ে।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র পর্যালোচনা করলে একটা আদর্শ সংগঠনই বলা যায়, শিক্ষা-শান্তি-প্রগতি -ই হচ্ছে ছাত্রলীগের মূলনীতি। প্রতি ২ বছর পর পর গঠনতন্ত্রে উল্লেখিত মেয়াদ অনুযায়ী ধারাবাহিকতার সাথে কেন্দ্রীয় সংসদের কমিটি পরিবর্তন হয়ে থাকে। ইউনিয়ন/উপজেলা/জেলা ইউনিট ১ বছর পর পর কমিঠি পরিবর্তনের ধারাও রয়েছে গঠনতন্ত্রে।

কক্সবাজার জেলার দ্বীপ উপজেলা মহেশখালী উপজেলা ছাত্রলীগের সর্বশেষ কমিঠি ঘোষনা হয় ২০১৮ সালে, বর্তমান কমিঠির মেয়াদকাল সভাপতি হালিমুর রশিদ এবং সাধারণ সম্পাদক পারভেজ আহমেদ বাবুর হাত ধরে আড়াই বছরে চলমান। অতঃপর কমিঠি ঘোষণার শুরু দীকে কমিঠির নব-নির্বাচিত সভাপতি হালিমুর রশিদকে নিয়ে শুরু হয় নানা বিতর্ক, একই কমিঠিতে কয়েকবার পদস্থ হওয়ায় গঠনতন্ত্র পরিপন্থী হিসাবে বির্তকের উদ্ভব হয়। বিতর্কে আর বিতর্কে অতিবাহিত হচ্ছে উপজেলার কমিঠির বিভিন্ন কার্যক্রম। উপজেলা ছাত্রলীগের নাম ভাঙ্গিয়ে মাতারবাড়ী কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্পে কমিশনের জন্যে গেলে প্রকল্প কতৃক নিষিদ্ধও হয় কয়েকবার।

নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায়, মহেশখালী উপজেলার আওতাধীন বিভিন্ন ইউনিয়নের কমিঠি দেওয়ার বিনিময়ে উপজেলা হালিম-বাবু কমিঠি হাতিয়ে নিয়েছি ১ থেকে সর্বোচ্চ ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত।

এমন এক প্রত্যক্ষদর্শী জানায়, টাকার বিনিময়ে কমিঠি বিক্রি করার কারণে আমাদের মাঝ থেকে হারিয়ে যাচ্ছে আসল তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা। যারকারণে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ দলের বদনাম দিন-দিন বেড়েই চলছে। টাকার বিনিময়ে কমিঠি বিক্রি গঠনতন্ত্রে রয়েছে কিনা? তাছাড়া টাকার বিনিময়ে কমিঠি বিক্রি করে দলকে কলঙ্কিত করার তীব্র প্রতিবাদ জানায় তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা।

সম্প্রীতি, টাকার বিনিময়ে মহেশখালীর আওতাধীন কালারমারছড়া ইউনিয়ন কমিঠি দেওয়ায় তোলপাড় সৃষ্টি হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে, যেখানে ইউনিয়ন কমিঠিতে পদ প্রত্যাশী এক ছাত্রনেতা টাকা জমা দেওয়া পরেও পদ না দেওয়া সরাসরি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উপজেলা হতে টাকা দাবি করেন।

তাছাড়া, মহেশখালী উপজেলা ইউনিট হতে কমিঠি বিক্রির সর্বোচ্চ ধরে বিক্রি হয় মাতারবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি যার বাজারমূল্য প্রায় ৬ লক্ষ টাকায় পর্যন্ত ওঠে। উক্ত মাতারবাড়ী ইউনিয়ন এবং কুতুবজোম ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিঠির মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ায় দীর্ঘ দেড় বছর পর হালিম-বাবুর স্বাক্ষরিত একটি বিজ্ঞপ্তিতে ২ ইউনিয়ন কমিঠি বিলুপ্ত করা হয় ৩১শে জুলাই রাত ১১ টা ৫৯ মিনিটে। উক্ত মাতারবাড়ী এবং কুতুবজোম ইউনিয়ন কমিঠি ১ আগষ্ট শোকের মাসে বিলুপ্ত করাতে কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের অফিশিয়াল কোন হাতে-কলমে বিজ্ঞপ্তি ছাড়া ফেসবুক পেইজ হতে মাতারবাড়ী ইউনিয়ন কমিঠি বিলুপ্তি গঠনতন্ত্র পরিপন্থী বলে পূর্ণবহাল দেন অথচ মহেশখালী উপজেলার একই বিজ্ঞপ্তিতে কুতুবজোম ও মাতারবাড়ী কমিঠি বিলুপ্ত হওয়ায় কুতুবজোম ইউনিয়ন ছাত্রলীগ কমিঠিকে পূর্ণবহাল দেওয়া হয়নি যার কারণে সাবেক ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভ দেখা দেয়।

কিন্তু গতকাল ৩১ শে অক্টোবর বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক বিজ্ঞপ্তিতে ২০ তারিখ ৯ মাস ২০১৯ তারিখের পর থেকে কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনের আয়োজন এবং কেন্দ্রীয় নিষেধাজ্ঞা থাকার উক্ত তারিখে পর থেকে কক্সবাজার জেলা কতৃক স্বাক্ষরিত যেসব ইউনিটি কমিঠি সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দৃষ্টিগোচর হয়েছে তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং গঠনতন্ত্র পরিপন্থী। সুতরাং ২০১৯ সালের উক্ত তারিখ হতে তাঁদের স্বাক্ষরিত কমিঠি সমূহ এবং সাংগঠনিক কার্যক্রমের কোন কার্যকারিতা নেই মর্মে প্রেস বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ।

উক্ত প্রেস বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী চলতি বছরের ৩১ শে জুলাই মাতারবাড়ী ইউনিয়ন কমিঠি উপজেলা ছাত্রলীগ কতৃক বিলুপ্তি ঘোষণাটি বহাল রয়েগেছে।

এব্যাপারে কুতুবজোম ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সদ্য বিলুপ্ত হওয়া কমিঠির আহ্বায়ক কলিম উল্লাহ ইমনের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, আহ্বায়ক কমিঠি হউক আর পূর্ণাঙ্গ কমিঠি হউক বিলুপ্ত ঘোষণার আগে আমাদের সাথে যোগাযোগ করে সমন্বয় করে বিলুপ্ত ঘোষনা করা প্রয়োজন ছিল। কোন ইঙ্গিত ছাড়া অত্র কমিঠি বিলুপ্ত ঘোষণা গঠনতন্ত্র পরিপন্থী বলে দাবী করেন তিনি। এছাড়া একই বিজ্ঞপ্তিতে মাতারবাড়ী – কুতুবজোম ইউনিয়ন বিলুপ্ত হওয়ার পর মাতারবাড়ী কমিঠি পূর্ণবহাল হয়েও কুতুবজোম ইউনিয়ন কমিঠি পূর্ণবহাল না পাওয়াতে স্থানীয় তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

মাতারবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগ কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ হলে, নতুন কমিঠির জন্যে ডজনখানেক পদ প্রত্যাশীরা ইতিমধ্যে উপজেলায় লাখ-লাখ টাকা জমা দিয়েছে বলে জানা যায় বিশ্বস্ত সূত্রে।

এব্যাপারে, ছাত্রলীগের সাবেক কয়েকজন নেতাকর্মীদের সাথে আলাপ করলে তাঁরা জানায়, বিগত ২/৩ কমিঠি থেকে মহেশখালী উপজেলা হতে টাকার বিনিময়ে কমিঠি বাণিজ্য শুরু করে যা তাঁর আগে ছিল না। বর্তমান সরকারের চলমান মেগাপ্রকল্পের মধ্যে মাতারবাড়ী কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্র একটি যার কারণে প্রকল্পে ব্যবসায়িক চিন্তা নিয়ে যেকেউ লক্ষ-লক্ষ টাকা দিয়ে মাতারবাড়ী ছাত্রলীগের কমিঠি নিচ্ছে, পরবর্তীতে বিভিন্ন অনৈতিক কাজে লিপ্ত হয়ে দলের সুনাম অর্জনের পরবর্তীতে দলকে কলঙ্কিত করে যাচ্ছে। মহেশখালী উপজেলায় সর্বোচ্চ টাকার বিনিময়ে মাতারবাড়ী ইউনিয়ন কমিঠি হয়েছে এমন রেকর্ড ও রয়েছে। যার কারণে আজ মাতারবাড়ী নয় শুধু পুরো মহেশখালী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আসল তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা অবহেলায় রয়েছে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Comments are closed.

এই বিভাগের আরো খবর
© সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত © 2022 dwipnews24.net
Desing & Developed BY ThemeNeed.com
error: Content is protected !!