অনলাইন ডেস্ক:  

মহেশখালীর কালারমারছড়ার ভাই-ভাই আনন্দ স্পোর্টিং ক্লাবের ব্যবস্থাপনায় টুর্নামেন্ট পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ খোকন, সদস্য আবু তালেব, ফাহিম রায়হান এবং রিদুয়ান মোস্তফা পরিচালিত মোহাম্মদ ওয়াহিদুল ইসলাম একরাম প্রদত্ত আন্তঃহাউস ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০২০, গত ২ আগস্ট, ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলার নির্দিষ্ট সময়ে গোল না হওয়ায় ট্রাইব্রেকারে ঢাকা ফুটবল দলকে হারিয়ে সিলেট ফুটবল দল ৪-৩ গোলে বিজয় লাভ করেছে।

গত ৮ জুলাই থেকে ৬টি দলে বিভক্ত করে টুর্নামেন্ট পরিচালিত হয়ে আসছে। পূর্বআঁধারঘোনা দরগাহ পাহাড়ের পশ্চিম পাশে অবস্থিত স্টেডিয়ামে সবকটা ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়।টুর্নামেন্টে একমাত্র হেট্রিককারী পারভেজ ৫টি গোল করে শ্রেষ্ঠ গোলদাতা নির্বাচিত হন। শ্রেষ্ঠ গোলরক্ষক নির্বাচিত হন তারেক ।

ফাহিম রায়হানের সঞ্চালনায় অামির হোছাইন মেম্বারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শামসুল আলম শাহী বলেন, এলাকার তরুণ সমাজ ফুটবল টুর্নামেন্টের সফল আয়োজন করতে পেরে আমি সবার প্রতি ধন্যবাদ জানচ্ছি। এভাবে ক্রীড়া ও সংস্কৃতি চর্চার ফলে এলাকার তরুণ প্রজন্মকে অনৈতিক কার্যকলাপ থেকে রক্ষা করা সম্ভব। একই সাথে এটির ধারাবাহিকতা রক্ষার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন এবং সার্বিক সহযোগিতা অব্যাহত রাখার আশ্বাসও দেন তিনি।

বিশেষ অথিতির বক্তৃতায় আবু আহমদ বলেন, সমাজে যোগ্যনেতৃত্ব তৈরি করতে সচেতন এবং শিক্ষিতশ্রেণিকে এগিয়ে আসতে হবে। এটির বাস্তবায়নের জন্য সন্ত্রাস ও মাদক ছেড়ে ক্রীড়া ও সংস্কৃতিকে লালন করার বিকল্প নেই। আরও বক্তৃতা করেন অধ্যাপক মুহম্মদ রুহুল আমিন, নুরুল আমিন বাচ্চু, মস্তাকিম মাহমুদ, মাঈনুল ইসলাম শরীফ, মাস্টার জসীম উদ্দীন, হানিফ আজম, বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন আবু বকর, আব্দু শুক্কুর, আলহাজ শহিদুল্লাহ, সৈকত নুর পুষ্প, ছদর আমিন, আনোয়ার হোছাইন, আব্দুল হামিদ, রিদুয়ান মোস্তফা, খলিল বাহাদুর প্রমুখ।

আলোচনা শেষে অতিথিরা বিজয়ী দলের অধিনায়ক হৃদয়ের হাতে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি তুলে দেন এবং খেলোয়াদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। সবশেষে খেলার আয়োজক কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ খোকন প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।