শফিউল আলম (মহেশখালী)

মহেশখালী থানা পুলিশ পৃথক পৃথক বিশেষ অভিযান চালিয়ে মোটরসাইকেল ছিনতাই চক্রের ৩ সদস্যকে আটক করে ৷অভিযানে তাদের কাছ হতে চুরি হওয়া ৩টি মোটরসাইকেল সহ ২ টিমোবাইল ফোন উদ্ধার করতে সক্ষম হয় ৷

২৯নভেম্বর রবিবার মহেশখালী থানা কম্পাউন্ডের  আনুষ্ঠানিক ব্রিফিংয়ের আয়োজন করা হয় ৷

ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, কক্সবাজার পুলিশ সুপার মােঃ হানানুজ্জামানের নির্দেশে সহকারী সিনিয়র পুলিশ সুপার মহেশখালী সার্কেল মােঃ জাহিদুল ইসলামের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অফিসার ইনচার্জ মােঃ আব্দুল হাই এর নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মােঃ আশিক ইকবাল এর সহযােগিতায় এসআই (নিঃ), মােঃ শাহাদাৎ, এসআই (নিঃ)  মনিষ সরকার সঙ্গিয় অফিসার ও ফোর্স সহ মহেশখালী থানার মামলা নং-০২ তাং-০২/১১/২০২০খ্রিঃ ধারা-৩৯৪ পেনাল কোড এবং মহেশখালী থানার মামলা নং-১৬, তাং-২৫/১১/২০২০ খ্রিঃ ধারা-৩৯৪ পেনাল কোড মামলা দুটির তদন্ত কালে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে মামলার সাথে জড়িতদের অবস্থান চিহ্নিত করতে সক্ষম হয় ৷

পরবর্তীতে মহেশখালী, চকরিয়া, লোহাগাড়ার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত আসামীদের আটক করে পুলিশ ৷

আটককৃত আসামী যথাক্রমে ১। মােঃ শফিকুল ইসলাম শফি ওরফে শহিদুল  শফিক (৩০) পিতা-জাকির হােসেন জাকের, সাং- উত্তর হারবাং, কুরবানিয়াঘােনা, চকরিয়া, ২। মিজানুর রহমান প্রকাশ জাহাঙ্গীর (৪২) পিতা-মােঃ গিয়াস উদ্দিন, সাং-খান্দগাও, থানা-জামালগঞ্জ, জেলা-সুনামগঞ্জ। এ/পি সাং, ষাইটমাড়া, রহিমাবদ (শুশুর বাড়ী) শাপলাপুর, মহেশখালী, ৩। মাে: নাছির উদ্দিন (৩৩) পিতা-মৃত জাকির হােসেন, সাং-লায়লাঘােনা, সাতঘরপাড়া, মহেশখালী, কক্সবাজার ৷

অভিযানে মােঃ শফিকুল ইসলাম শফি @ শহিদুল @ শফিকের কাছ হতে ছিনতাই হওয়া ১টি লাল রঙ্গের হিরাে মটর সাইকেল, আসামী মিজানুর রহমান প্রকাশ জাহাঙ্গীরের কাছ হতে ছিনতাই হওয়া ১টি কালাে রঙ্গের ইয়ামাহা মটরসাইকেল ,এবং আসামী মাে: নাছির উদ্দিন এর হেফাজত হইতে ছিনতাই হওয়া ১টি মোটরসাইকেল, ১টি স্মার্ট মােবাইল ফোন ও ১টি বাটন মােবাইল ফোন উদ্ধার করে ।

ছিনতাই হওয়া মালামাল গুলো মহেশখালী থানার হেফাজতে  মামলার বাদীগন সনাক্ত করেন। উক্ত আসামীগন দীর্ঘ দিন যাবৎ মামলার ঘটনাস্থল সহ আশপাশ এলাকায় ছিনতাই করে আসছিলো। প্রত্যেকেই একই ছিনতাই দলের সক্রিয় সদস্য বলে প্রাথমিক জিগ্যাসাবাদে জানা যায়।