দ্বীপ নিউজ ডেস্ক:

সদ্য করোনা জয় করে ফেরা মহেশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (ইপিআই)নূরুল আলম হেলালী ও স্বাস্থ্য সহকারী মুহাম্মদ মুনির উদ্দিন করোনা আক্রান্ত রোগীদের প্লাজমা দেওয়ার ঘোষনা দিয়েছেন৷

মহেশখালীতে দুজনেই করোনা আক্রন্তের শুরু থেকে প্রথমে মাঠ পর্যায়ে নমুনা সংগ্রহের কাজ করে আসছেন, পরবর্তীতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নির্ধারিত বুথে নমুনা সংগ্রহের কাজ করে আসছিলেন৷ প্রায় একই সময় নমুনা সংগ্রহে দায়িত্বরত মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট শেখ আব্দুল হালিম, মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (ইপিআই) নুরুল আলম হেলালী ও স্বাস্থ্য সহকারী মুহাম্মদ মুনির উদ্দিন করোনা আক্রান্ত হন ৷

তারা আক্রান্ত ও সন্দেহভাজনদের নমুনা সংগ্রহ করতে গিয়ে আক্রান্ত হন৷ বর্তমানে তারা সবাই সম্পূর্ণ সুস্থ আছেন৷ টেকনেশিয়ান হেলালীর রক্তের গ্রুফ এ পজেটিভ (A+) এবং স্বাস্থ্য সহকারী মুনিরের রক্তে গ্রুফ বি পজেটিভ (B+) ৷ একই রক্তের গ্রুপের আক্রান্ত যে কাউকে প্লাজমা দিতে প্রস্তুত আছেন বলে জানান, নুরুল আলম হেলালী এবং মুহাম্মদ মুনির উদ্দিন৷

মহেশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (ইপিআই) নুরুল আলম হেলালী দ্বীপ নিউজ টুয়েন্টিফোরকে বলেন, করোনার শুরু থেকে মানব সেবায় রাত দিন এক করে কাজ করে আসছি, সামনের দিনগুলোতেও মানব সেবায় নিজের জীবন উৎসর্গ করতে চাই, করোনা আক্রান্তদের নমুনা সংগ্রহ করতে গিয়ে আক্রান্ত হয়েছি, মহেশখালীবাসীর দোয়া ও আল্লাহর রহমতে এখন করোনা মুক্ত। মহান আল্লাহ তায়ালা সবাইকে সুযোগ দেননা মানব সেবা করার, আমাদেরকে সুযোগ দিয়েছেন, আমরা এই সুযোগ হাতছাড়া করতে চাইনা৷ করোনা আক্রান্ত যে কোন রোগীকে প্লাজমা দিতে প্রস্তুত আছি আমরা৷

মহেশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য সহকারী মুহাম্মদ মুনির উদ্দিন দ্বীপ নিউজ টুয়েন্টিফোরকে বলেন, মানব সেবায় উত্তম ধর্ম, তাই মানব সেবর ব্রত নিয়ে করোনা আক্রান্তের শুরু থেকে নমুনা সংগ্রহের কাজ করে আসছি, করোনা আক্রন্ত মুমর্ষ যে কোন রোগীর প্রয়োজন রক্তের গ্রুফ মিল হওয়া সাপেক্ষে প্লাজমা দিতে প্রস্তত আছি৷

এমতাবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (ইপিআই) নুরুল আলম হেলালী এবং স্বাস্থ্য সহকারী মুহাম্মদ মুনির উদ্দিন যাতে অনবরত মহেশখালী বাসীকে সেবা দিতে পারেন এবং নমুনা সংগ্রহের কাজ করে যেতে পারেন তাই তাঁহারা মহেশখালী বাসীর দোয়া কামনা করেছেন।