মহেশখালী হেফাজত ইস্যুতে এমপি আশেক নিয়ে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আসাদ উল্লাহ সায়েম’র আবেগময় ফেইসবুক স্ট্যাটাস

নিম্নে হবুহু তুলে ধরা হল……

মহেশখালী-কুতুবদিয়ার জনপ্রিয় মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক গত ০১ এপ্রিল বৃস্পতিবার জাতীয় সংসদের অধিবেশনে যোগ দেওয়ার জন্য ঢাকা যান, জাতীয় সংসদের অধিবেশনে যোগ দিতে (কোভিড-১৯) করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট জমা দিতে হয়৷ রিপোর্ট নেগেটিভ হলে অধিবেশনে যোগ দিতে পারেন, পজেটিভ হলে কোয়ারান্টাইন ও চিকিৎসা গ্রহন করতে হয় পূনরায় নেগেটিভ রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত ৷

শুক্রবার পরপর দুইবার পরীক্ষায় রিপোর্ট পজেটিভ আসে মাননীয় সংসদ আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক এমপির৷ লক্ষন উপসর্গ বেশী না থাকার দরুন তিনি ন্যাম ভবনে কোয়ারান্টাইনে আছেন৷ এর ভিতরে এইদিকে মহেশখালীতে গত শনিবার রাতে ঘটে গেল ইতিহাসের ন্যাক্কারজনক ঘটনা৷ হামলা হল বড় মহেশখালীস্থ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে৷ অগ্মিসংযোগ হল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে৷
এমতাবস্থায় উগ্রপন্থি এই মানুষগুলোর পেছনে কলকাটি নাড়া মানুষগুলোর আশা লাশ নিয়ে রাজনীতি করার অপচেষ্টা ভন্ডুল ও মামলা নিয়ে বড় ধরনের বানিজ্য করতে না পেরে যার পরানই হতাশ পেছনের কুশীলবরা৷

বর্তমানে মাননীয় সাংসদের অসুস্থতা নিয়ে অপপ্রচারে লিপ্ত হয়ে নেতাকর্মীদের মনোবল ছিড় ধরিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টায় লিপ্ত আছে৷
যারা অপপ্রচারে লিপ্ত তাদের এই পর্যন্ত মাঠে ময়দানে বা রাস্তাঘাটে এখনো পর্যন্ত দেখা যায়নি!
সতর্ক থাকতে হবে, সজাগ থাকতে হবে৷ কৌশলী হতে হবে৷ কোনাভাবেই পাতানো ফাঁদে পা দেওয়া যাবেনা৷