নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

প্রান্তিক মানুষদের কাছে অত্যাধুনিক ও গুণগত স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের লক্ষ্যে সম্পূর্ণ ডাক্তারদের দ্বারা পরিচালিত মাতারবাড়ী একমাত্র হাসপাতাল ‘মাতারবাড়ি ডিজিটাল হসপিটাল এন্ড ডায়াবেটিস সেন্টার’ এর শুভ উদ্ভোধন করা হয়েছে।

উদ্ভোধন অনুষ্ঠানে মাতারবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস.এম আবু হায়দারের সভাপতিত্বে উদ্ভোধক ছিলেন মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ আবদুল হাই পিপিএম।পরিচালক কাইছারুল ইসলাম কায়েস ও বাহার উদ্দিন বাহারের সঞ্চালনায় প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফিজিওলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও মাতারবাড়ী ডিজিটাল হসপিটাল এন্ড ডায়াবেটিস সেন্টারের উপদেষ্টা ডাঃ সোহেল বকস।অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার জেলা পরিষদের সাবেক সদস্যা মশরফা জান্নাত, শাপলাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক দিদারুল আলম ও মাতারবাড়ির ইউপি সদস্য মিছবাহ উদ্দিন মজিদি।

পবিত্র কোরআন তেলোওয়াতের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানের শুভেচ্ছা বক্তব্যে আরিফুল হক বলেন, মাতারবাড়ি মূল ভূখণ্ড থেকে পৃথক হওয়ায় দীর্ঘদিন ধরে অবহেলিত। হাসপাতালটির মাধ্যমে মাতারবাড়ীর মানুষ তাৎক্ষণিক চিকিৎসা সেবার সকল সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।

প্রধান আলোচকের বক্তব্যে ডাঃ সোহেল বকস বলেন, মাতারবাড়ীর ডাক্তার সাগর ও আরমান ছেলেরা হাসপাতালে রোগী দেখবেন, যা স্থানীয়দের জন্য রহমত। মাতারবাড়ীর ডিজিটাল হাসপাতাল চিকিৎসা সেবায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন। এক সময় চিকিৎসার জন্য স্থানীয়দের জেলা ও চট্টগ্রাম শহরে যেত হতো। বর্তমানে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা পাবেন।তিনি স্থানীয় ডাক্তারের প্রতি আস্তা রাখার জন্য আহবান জানান।

মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হাই বলেন, ‘মানুষ বাঁচে তাঁর কর্মের মাঝে। এই অঞ্চলে এমন একটি হাসপাতাল মানুষের সেবা দানের মধ্যদিয়ে মানুষের মাঝে অমর হয়ে থাকবে।’

সভাপতির বক্তব্যে মাতারবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু হায়দার বলেন, হাসপাতাল হচ্ছে চিকিৎসা সেবা প্রদানের অন্যতম প্রধান মাধ্যম। তাই মানুষের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে হলে চিকিৎসাকেন্দ্র বা হাসপাতালের বিকল্প নাই।মাতারবাড়ী সর্বসাধারণের চাহিদা বিবেচনা রেখে এই হাসপাতাল এগিয়ে যাবে।

মাতারবাড়ী ডিজিটাল হসপিটাল এন্ড ডায়াবেটিস সেন্টারের চেয়ারম্যান ডাঃ সাকের উল্লাহ সাগর বলেন, গ্রামের প্রান্তিক মানুষদের মাঝে চিকিৎসা সেবা পৌঁছানো লক্ষ্যে আমাদের এই হাসপাতালের যাত্রা।চিকিৎসা সেবার সব ধরনের সুযোগ রাখা হয়েছে এখানে।অসহায় ও দারিদ্র মানুষের জন্যে রাখা হয়েছে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাতারবাড়ী ডিজিটাল হাসপাতালের অংশীদার আবু বক্কর ছিদ্দিক, মাস্টার কাইছারুল ইসলাম, ডাঃ আরমান কাদের, মাহমুদুল হাসান মানিক, এহতেশাস আলী, মাহমুদুল হক, আব্দুল মানিক, এস.আই বোরহান উদ্দিন, ম্যানেজার শাকের উল্লাহ, মনজুর আলম, মোঃ হোছাইন, জিসান উদ্দিন, হাফেজ রুহুল আমিন, সাকের উল্লাহ এবং স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিসহ সর্বস্তরের জনসাধারণ।

১০ শয্যা বিশিষ্ট মাতারবাড়ী ডিজিটাল হাসপাতাল এন্ড ডায়াবেটিস সেন্টার সার্বক্ষণিক একজন গাইনী চিকিৎসক এবং মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার চিকিৎসা সেবা দিবেন। পাশাপাশি মাতারবাড়ীর সন্তান ডাঃ সাকের উল্লাহ সাগর (এমবিবিএস) ও ডাঃ আরমান কাদের (এমবিবিএস) এলাকার মানুষদের স্বাস্থ্য সেবা দিবেন বলে জানা যায়।

উদ্ভোধনী অনুষ্ঠান শেষে অতিথিদের নিয়ে কেক কেটে উদ্ভোধনী অনুষ্ঠান উৎযাপন করা হয় এবং আগত ডাঃ সোহেল বকস বিনামূল্যে ১০ জন্য সেবাপ্রার্থীকে স্বাস্থ্যসেবা প্রধান করে।