দ্বীপ নিউজ ডেস্ক:  

মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ী বিদ্যুৎ প্রকল্পে ১১ জনের করোনা শনাক্ত, প্রকল্পে কর্মরত স্থানীয় শ্রমিকদের মাঝে সংক্রমণের আশংকায় আতঙ্কিত।

কক্সবাজারের দ্বীপ উপজেলা মহেশখালীর মাতারবাড়ী বিদ্যুৎ প্রকল্পের নির্মাণকাজে নিয়োজিত আট বিদেশিসহ ১১ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্ত বিদেশি আটজনের সবাই ফিলিপাইনের নাগরিক। এ ছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে একজন চিকিৎসক রয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক (রোগনিয়ন্ত্রণ) এস এম আশরাফুজ্জামান এই তথ্য জানিয়েছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, বুধবার ৭০ জনের নমুনা কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ১১ জনের প্রতিবেদন পজিটিভ আসে। আক্রান্তরা মাতারবাড়ী তাপবিদ্যুৎ প্রকল্পের নির্মাণকাজে বিভিন্ন পদে কর্মরত। আক্রান্তদের মধ্যে একজন চিকিৎসক ও আটজন ফিলিপাইনের নাগরিক। বুধবার পর্যন্ত এই উপজেলায় কোভিড–১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ায় ১৭০। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৫১ জন।

জানতে চাইলে কোল পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি বাংলাদেশ লিমিডেটের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ মনোয়ার হোসেন মজুমদার প্রথম আলোকে বলেন, এই প্রকল্পের নির্মাণকাজে নিয়োজিত বিদেশি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের ১১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। তার মধ্যে আটজন বিদেশি রয়েছেন। তাঁরা সবাই ফিলিপাইনের নাগরিক। আক্রান্তদের মধ্যে দুজন বিদেশিসহ পাঁচজনকে চিকিৎসার জন্য সকালে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বাকি ছয়জন বিদেশিকে প্রকল্পের ভেতরে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

তাছাড়া প্রকল্পে সহস্রাধিক স্থানীয় শ্রমিক বিভিন্ন ঠিকাদারি কোম্পানিতে চাকরিরত অবস্থায় রয়েছে। এর মাঝে হঠাৎ প্রকল্পে করোনার হানায় স্থানীয় শ্রমিকগুলোর মাঝে সংক্রমণের আশংকায় আতঙ্কে রয়েছেন।

এব্যাপারে প্রকল্পে কর্মরত স্থানীয় কয়েকজন শ্রমিকের সঙ্গে কথা বললে তাঁরা জানায়, দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রণের আগে থেকে প্রকল্পের কাজ এখনো চলমান। আমরা পরিবারের কথা মাথায় রেখে নির্ভয়ে কাজ করেছি গেছি, করোনা যেহেতু ছোঁয়াচে রোগ তাই একে অপরের শরীরে সংক্রমণের শঙ্কা থেকে যায়। এখন প্রকল্পে ১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে বলে খবর পেয়েছি যার কারণে একে অপরের সংস্পর্শে প্রকল্প থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে পর্যন্ত ছড়ানোর আশংকা রয়েছে।

তাই স্থানীয় শ্রমিকরা সম্প্রীতি প্রকল্পে করোনা ভাইরাস শনাক্তের বিষয়টা মাথায় রেখে প্রকল্প কতৃপক্ষ কাজ এগিয়ে নেওয়ার জন্যে অনুরোধ জানায়।