নিউজ ডেস্ক:-

দক্ষিণ চট্টগ্রামের পীরে কামেল,সূফি সাধক মরহুম মাওলানা উকিল আহমদ মজিদির বাড়ি সংলগ্ন ২নং ওয়ার্ডের প্রধান সড়কটি বৃষ্টির পানির কারণে সৃষ্টি হয় জলাবদ্ধতা। ফলে জনসাধারণের চলাচলের জন্য অনুপযোগী হয়ে উঠে। এমতাবস্থায় এলাকাবাসীর অনুরোধে অকেজো হয়ে পড়া রাস্তাটি পরিদর্শনে যান, মাতারবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আবু হায়দার। তিঁনি সড়কটি মেরামত করবে বলে স্থানীয়দের মাঝে কথা দেন।

পরিদর্শনের পর ৩ দিনের মাথায়, তিনি রাস্তাটিতে ২ শতাধিক বালি ভর্তি বস্তা দিয়ে সড়কটিকে চলাচলের জন্য উপযোগী করে তুলেন।

সরজমিনে পরিদর্শনের সময় স্থানীয়রা বলেন,” দীর্ঘদিন যাবৎ এ রাস্তাটি নিয়ে নানান সমস্যার সম্মূখীন হতে হয়। হায়দার ভাইয়ের কাছে রাস্তাটি পরিদর্শনে জন্য অনুরোধ করি। ভাই, পরিদর্শনের পর,৩য় দিনের মাথায় নিজ অর্থায়নে রাস্তাটি চলাচলের জন্য উপযোগী করে দেন।এ জন্য আমরা স্থানীয়রা হায়দার ভাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।”

এ বিষয় নিয়ে আবু হায়দারের সাথে যোগাযোগ করলে, তিঁনি জানান,” আমি কথায় নয়,কাজে বিশ্বাসী। স্থানীয়রা রাস্তাটির বেহাল দশার কথা আমাকে বললে,আমি তৎক্ষনাৎ সংস্কারের ব্যবস্থা গ্রহণ করি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী স্বপ্ন গ্রামকে শহর করার পরিকল্পনাকে গতিশীল করার লক্ষে , এই ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র কাজ গুলো করে যাচ্ছি এবং ভবিষ্যতে অব্যহত থাকবে। এজন্য তিনি সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।”

এই রাস্তার পাশের রয়েছে দক্ষিণ চট্টলার প্রখ্যাত আলেম,পীরে কামেল,অধ্যাত্মিক সাধক,মাতারবাড়ীর পীর সাহেব কেবলা সর্বজন শ্রদ্ধেয় মৌলানা উকিল আহমদ মজিদি এর রওজা মোবারক। ফলে সারাদিন অসংখ্যা মানুষ এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করে। তাছাড়া এই রাস্তাটি ২নং ওয়ার্ডের প্রধান রাস্তা।