মিজবাহ উদ্দীন আরজু ( মহেশখালী প্রতিনিধি)

বলছিলাম মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়নের নোনাছড়ি এলাকার পূর্ব গোদারপাড়া গ্রামের মৃত জাবের আহমদ এর পুত্র দিনমজুর মোঃ দেলোয়ার (৩৮) এর কথা। স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে বর্তমান মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন তিনি।

তার ২ মেয়ে ১ ছেলে বড় ছেলে সদ্য হাফেজ হয়েছে। আর বড় মেয়ে নোনাছড়ি স.প্রা. তে ৫ম শ্রেণীতে পড়ে। আর এক মেয়ে ছোট।

দিনমজুর দেলোয়ার তার বসতভিটায় দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে বসত করে আসছেন। চলতি বছরের মৌসুমি বর্ষায় অতি বৃষ্টির কারণে হঠাৎ পাহাড়ী ঢল নেমে তার ঘরের উপর দিয়ে। সৃষ্টিকর্তার অশেষ কৃপায় তারা প্রাণে বেঁচে গেলেও তার মাটির ঘরটি বিলিন হয়ে যায় উক্ত পাহাড়ী ঢলে। যার কারণে তার স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে রাত্রীযাপনে খুবিই সমস্যা হয়ে যাচ্ছে।

সরেজমিনে গিয়ে দিনমজুর দেলোয়ারের সাথে কথা বলে জানতে পারলাম যে, সে দিনমজুরি করে কোন প্রকার সংসার চালায় তার এমন কোন অর্থ নাইযে সে নতুন করে আবার ঘরটি নির্মাণ করবে। আরো জানতে পারলাম যে, সম্প্রতিক কোভিড-১৯ করোনাকালে সরকারি বেসরকারি কোন ধরনের সহায়তাও তিনি পাননি এ পর্যন্ত।

সর্বোপরি দিন মজুর মোঃ দেলোয়ার সংশ্লিষ্ট জনপ্রতিনিধি ও বিত্তবানদের প্রতি আকুল আবেদন জানান যে, তার এই সংকটময় মুহুর্তে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার।