মিছবাহ উদ্দীন আরজু, (নিজেস্ব প্রতিনিধি)::
আগামী ৪ঠা ডিসেম্বর (শনিবার) কক্সবাজার জেলার অন্যতম যুগোপযোগী মানসম্পন্ন দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান মা’হাদ আন-নিবরাসে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে কক্সবাজার জেলার সর্ববৃহৎ হিফজুল কুরআন সম্মাননা। মা’হাদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মাওলানা আনসারুল্লাহ-সূত্রে জানা গেছে, উক্ত অনুষ্ঠানে মা’হাদ আন-নিবরাস থেকে হিফ্‌জ সমাপনকারী ৩৫জন হিফ্জ সমাপনকারী শিক্ষার্থীকে সম্মাননা দেওয়া হবে।
তিনি আরও জানিয়েছেন, এই শিক্ষার্থীরা পর্যায়ক্রমে শবিনাখতমের মাধ্যমে স্বীকৃত হাফেজে কুরআন হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করেছে। উক্ত সম্মাননা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন- জামেয়া দারুল মা’আরিফ আল-ইসলামিয়ার সহকারী পরিচালক আল্লামা মুহাম্মদ ফুরকানুল্লাহ খলিল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিপ্রাপ্ত ক্বারি ও হাফেজ শায়খ নাজমুল হাসান। বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত থাকবেন- কক্সবাজার আদর্শ মহিলা কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা ফরিদ আহমদ চৌধুরি, কক্সবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব ও মাওলানা মাহমুদুল হক (সাবেক অধ্যক্ষ), বিশিষ্ট মিডিয়াব্যক্তিত্ব মাওলানা রুহুল আমিন সাদী, মাশরাফিয়া তাহ্‌ফিজুল কুরআন মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা হাফেজ সালামতুল্লাহ, জামেয়া দারুল মা’আরিফ আল-ইসলামিয়ার শিক্ষক মাওলানা আফিফ ফুরকান মাদানি, কক্সবাজার শহিদ তিতুমীর ইন্সটিটিউটের পরিচালক মাস্টার শফিকুল হকসহ অনেকেই।
নির্ভরযোগ্য তথ্যের ভিত্তিতে আরও জানা গেছে, কক্সবাজার জেলার ইতিহাসে একসাথে ‘রেকর্ড’ ৩৫জন হাফেজে কুরআনের সম্মাননায় এমন হিফজুল কুরআন সম্মাননা আর কোথাও অনুষ্ঠিত হয়নি। সন্তানদের এমন সাফল্যে সংশ্লিষ্ট অভিভাবকগণ উক্ত প্রতিষ্ঠানের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও শুকরিয়া জ্ঞাপন করেছেন। মা’হাদ আন-নিবরাসের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক মাওলানা জিয়াউল হক বলেন, অনেক স্বপ্ন ও আশা নিয়ে ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দে মা’হাদ আন-নিবরাস প্রতিষ্ঠা লাভ করেছিল। কক্সবাজারের মতো এমন আন্তর্জাতিক শহরে আন্তর্জাতিক মানের দ্বীনি ও আধুনিক শিক্ষার সমন্বয়ে একটি যুগোপযোগী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দাঁড় করানো সময়ে দাবি হয়ে উঠেছিল তখন। আলহামদুলিল্লাহ! আমাদের স্বপ্ন ও আশা যে আজ সাফল্যের দ্বারপ্রান্তে, আগামী ৪ঠা ডিসেম্বরের হিফজুল কুরআন সম্মাননা সেটাই প্রমাণ করে। ইনশাআল্লাহ, মা’হাদ আন-নিবরাস নিজেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার প্রতিযোগিতায় সামনে আরও সুদৃঢ় অবস্থানে থাকবে।
উল্লেখ্য যে, ইতঃপূর্বে ১ম হিফজুল কুরআন সম্মাননা অনুষ্ঠানে ২১জন হাফেজে কুরআনকে সম্মাননা দেওয়া হয়েছিল। আরও উল্লেখ্য যে, হাফেজে কুরআনদের সম্মাননার পাশাপাশি এবারের অনুষ্ঠানে মা’হাদের দু’জন শিক্ষাবিষয়ক উপদেষ্টাকে পিএইচডি অর্জন করায় সম্মাননা প্রদান করা হবে। তাঁরা হচ্ছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের সহকারী অধ্যাপকদ্বয় অধ্যাপক ড. মুফতি হুমায়ুন কবির ও অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ শফিউল্লাহ কুতুবী। এই ২য় হিফজুল কুরআন সম্মাননা অনুষ্ঠানের সার্বিক সাফল্যের জন্য সবার নিকট দু’আ ও উপস্থিতি কামনা করেছেন মা’হাদ আন-নিবরাসের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক মাওলানা জিয়াউল হক।