1. dwipnews24.info@gmail.com : Dwip News 24 :
  2. editor@dwipnews24.com : Newsroom :
স্যানিটাইজারের নামে বিক্রি হচ্ছে বার্নিশের স্পিরিট | দ্বীপ নিউজ
April 23, 2024, 8:24 am
শিরোনাম :
মাতারবাড়ীতে পূর্ব শত্রুতার জেরে রাতের আধাঁরে হামলা ও লুটপাট, আহত একাধিক মাতারবাড়িতে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু, পরিবারের দাবী হত্যা মহাকাশ গবেষণায় মহেশখালীর ১১ শিশু-কিশোরের সফলতা মাতারবাড়ি প্রকল্পের ভিতরে সাংবাদিক রকিয়তকে আটকে রেখে মারধর ও হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন মাতারবাড়ীতে সাংবাদিকদের হাত-পা কেটে সাগরে ভাসিয়ে দেওয়ার হুমকি কক্সবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান রাজাকে বিভিন্ন মহলে অভিনন্দন কক্সবাজার জেলা থেকে বিভাগীয় পর্যায়ে জয়িতা সম্মাননা পেলেন শাহরিন জাহান মহেশখালীতে ভুমিহীন ও ক্ষতিগ্রস্ত জনগোষ্ঠীর জীবন জীবিকার সুরক্ষার তাগিদে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত কক্সবাজার-২ থেকে ইসলামী ঐক্যজোটের মনোনয়ন পাচ্ছেন সাংবাদিক নেতা মাওলানা ইউনুস মহেশখালীতে তুচ্ছ ঘটনায় নিহত ১, নগদ টাকাসহ ৩০ লক্ষ টাকার মালামাল লুটের অভিযোগ 

স্যানিটাইজারের নামে বিক্রি হচ্ছে বার্নিশের স্পিরিট

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, জুলাই ২, ২০২০
  • 284 ভিউ

ঢাকা: করোনা মহামারিতেও বসে নেই অসাধু চক্র। সরকারি দফতর থেকে শুরু করে যে যেখানে সুযোগ পাচ্ছে, সেখানেই সাধারণ জনগণের সর্বনাশ করে চলেছে তারা।

বারবার হাত ধোয়ার বিকল্প হিসেবে নভেল করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারের পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। বাজারে তাই প্রচুর চাহিদা এই পণ্যটির। সরকারের অনুমোদন সাপেক্ষে দেশের সাতটি ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানি এই জীবাণুনাশক তৈরিও করছে। কিন্তু সেটার দাম সাধারণ মানুষের হাতের নাগালে, তা বলা যাবে না।

খেটে খাওয়া মানুষের পক্ষে ২০০ মিলি লিটার স্যানিটাইজার ১৩০ টাকা দিয়ে কেনা প্রায় অসম্ভব, আর এই সুযোগটিই নিচ্ছে অসাধু চক্র। বর্তমানে প্রায় সবখানেই ফেরি করে, ভ্যানে, ফুটপাতে বসে অনেকেই নামহীন কোম্পানির স্যানিটাইজার বিক্রি করছে। দাম কম হওয়ায় নিম্নআয়ের মানুষ সেগুলোই কিনে ব্যবহার করছেন। প্রকৃতপক্ষে এগুলো স্যানিটাইজার নয়, বরং ক্ষতিকারক পদার্থ দিয়ে তৈরি। শুধু তাই নয়, অনেক ক্ষেত্রে দেখা গেছে এতে স্যানিটাইজারের কোনো উপাদানই নেই। কেবল মিথাইল অ্যালকোহল বা কাঠের বার্নিশে ব্যবহারযোগ্য স্পিরিট দিয়ে বোতল ভরে রাখা হয়েছে।

ksrm

সম্প্রতি রাজধানীর বারডেম হাসপাতালের ইব্রাহিম কার্ডিয়াক সেন্টার থেকে খোলাবাজারের ওই স্যানিটাইজারগুলোর নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে যে ফলাফল আসে তাতে চোখ কপালে ওঠার জোগাড়!

বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ (বিসিএসআইআর) বা সায়েন্সল্যাব থেকে ওই পরীক্ষাটি করান ইব্রাহীম কার্ডিয়ার সেন্টারের সহযোগী অধ্যাপক ও কনসালট্যান্ট ডা. সাকলায়েন রাসেল।

তিনি জানান, শাহবাগ থেকে ২টি, ইব্রাহিম কার্ডিয়াকে সাপ্লাই করা একটি; মোট তিনটা হ্যান্ড স্যানিটাইজার সায়েন্সল্যাবে নিজ উদ্যোগে পরীক্ষা করতে দিয়েছিলাম। এতে খোলাবাজার থেকে কেনা স্যানিটাইজার দু’টিতে ৯৩ দশমিক ০৪ শতাংশ মিথানলের উপস্থিতি পাওয়া গেছে বলে প্রতিবেদন দিয়েছে বিসিএসআইআর। এটা মানবদেহের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।

আশ্চর্য্যের বিষয় হলো- স্যানিটাইজার তৈরির মূল উপাদান হলো ইথানল বা ইথাইল অ্যালকোহল। খোলাবাজারের স্যানিটাইজার দু’টিতে ইথানলের কোনো উপস্থিতিই নেই।

তিনি বলেন, ইব্রাহিম কার্ডিয়াকে সাপ্লাই করা হ্যান্ড স্যানিটাইজারে প্রয়োজনীয় সব উপাদান নির্দিষ্ট মাত্রায় পাওয়া গেছে। আর খোলাবাজারের স্যানিটাইজারে ইথানল তো নেই-ই, বরং মিথানল পাওয়া গেছে। এই মিথানল রংয়ে মেশানো হয়। কাঠে বার্নিশ করতে ব্যবহার করা হয়।

মিথানল ব্যবহারের কারণে অন্ধত্ব, পঙ্গু হয়ে যাওয়ার শঙ্কা থাকে। আমাদের দেশে প্রায় প্রতিবছরই শোনা যায়, ভেজাল মদ বা স্পিরিট খেয়ে মানুষের মৃত্যু হয়েছে। সেই স্পিরিটই হচ্ছে মিথাইল অ্যালকোহল, যা ব্যাপক বিষাক্ত।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Comments are closed.

এই বিভাগের আরো খবর
© সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত © 2022 dwipnews24.net
Desing & Developed BY ThemeNeed.com
error: Content is protected !!