বেগম জিয়ার মুক্তি ও উন্নত চিকিৎসার লক্ষ্যে বিদেশে প্রেরণের দাবি নিয়ে সকলকে এক কাতারে সামিল হওয়ার আহ্বান

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
বিএনপি চেয়ারপার্সন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী, আপোষহীন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার জন্য বিদেশ প্রেরণের দাবিতে আগামী ৩ জানুয়ারি কক্সবাজার শহরে বিএনপির মহাসমাবেশ সফল করার লক্ষ্যে মহেশখালী বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের যৌথ প্রস্তুতি সভা গতকাল (মঙ্গলবার) অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও মহেশখালী-কুতুবদিয়ার সাবেক এমপি আলমগীর মুহাম্মদ মাহফুজ উল্লাহ ফরিদ এর আহ্বানে অনুষ্ঠিত প্রস্তুতি সভায় মহেশখালী উপজেলার সকল স্তরের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পৌরসভার ঝর্ণা কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত উক্ত প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক এমপি আলমগীর ফরিদ বলেন, আমরা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার অযোগ্য সন্তান। দেশমাতাকে মুক্তির জন্য আমাদের সর্বোচ্চ ত্যাগ শিকার করতে হবে। বেগম জিয়ার মুক্তির জন্য তিনি দলের সকল স্তরের নেতাকর্মী ও দেশপ্রেমিক জনতাকে কক্সবাজারের মহাসমাবেশে যোগদান করে দেশমাতার উন্নত চিকিৎসায় বিদেশে প্রেরণ ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবি নিয়ে এক কাতারে সামিল হতে ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। তিনি আরো বলেন, জাতীয়তাবাদী পরিবারের পাশপাশি সকল স্তরের জনগণ সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য এক ও অভিন্ন হয়ে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। দেশের জনগণ আশা করে অচিরেই সরকার দেশনেত্রীকে মুক্তি দিয়ে বিদেশে উন্নত চিকিৎসা নেওয়ার মৌলিক অধিকার ফিরিয়ে দিবে। কক্্সবাজারের মহাসমাবেশে দ্বীপ উপজেলা মহেশখালী ও কুতুবদিয়া থেকে ২০ হাজারেরও অধিক নেতাকর্মী যোগদান করবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। মহেশখালী বিএনপির সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান রুহুল কাদের বাবুলের সভাপতিত্বে উপজেলা যুবদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক জিয়াউর রহমান ডালিমের সঞ্চালনায় পৌর ছাত্রদল নেতা আবুল বয়ানের কোরআন তেলোআতের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সহ সভাপতি এডভোকেট নুরুল আলম, সাবেক জেলা সহ-সভাপতি মাস্টার আব্দুল মান্নান, পৌর বিএনপির সভাপতি এডভোকেট হামিদুল হক, উপজেলা বিএনির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সিরাজুল হক রানা, মাতারবাড়ির সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম এম.কম, জেলা বিএনপির সদস্য ও সাবেক উপজেলা যুবদলের সভাপতি আক্তার কামাল চৌধুরী, শাপলাপুর বিএনপির সভাপতি সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন রতন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম কমিশনার, মাতারবাড়ি বিএনপির আহ্বায়ক গোলাম মোস্তফা সৈদর, কালামারছড়া বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফরিদুল আলম ফরিদ, মাতারবাড়ি বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক এমইউপি মিসবাহ উদ্দিন মজিদি, গোলাম কাদের মাস্টার, শাপলাপুর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গোলাম কাদের মেম্বার, হোয়ানক বিএনপি নেতা আব্দুর রহিম, বড় মহেশখালী বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কাশেম মেস্বার, হোয়ানকের সাংগঠনিক সম্পাদক রমিজ আলম, উপজেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম-আহ্বায়ক আনচার উল্লাহ বিএ, যুগ্ম-আহ্বায়ক যথাক্রমে আ স ম জাহেদুল হক নাহিদ ও মাহফুজুল হক, উপজেলা যুবদল নেতা মোক্তার আহমদ, আব্দুল মতিন, এম নুরুন্নবী, এম আবুল কাশেম, মিজানুর রহমান, আসাদ উল্লাহ হেলালী, মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম, মাসুকুল ইসলাম মাসুদ, আবুল কালাম, আলী আকবর, আব্দুল আজিজ, মৌলানা ফোরকান, শাহেদ খান, উপজেলা ছাত্রদল আহ্বায়ক তারেক রহমান জুয়েল, পৌর ছত্রদলের সদস্য সচিব আলাউদ্দিন নাঈম, মহেশখালী কলেজ ছাত্রদলের আহ্বাক একরামুল হক, উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক যথাক্রমে ইমন চৌধুরী, তায়েব ইলাহি সিকদার, সায়েম সিকদার, আসমাউল হাসান খোকা, আব্দুল আজিজ নয়ন, ছাত্রদল নেতা কামাল হোসেন জিকু, মোরশেদ খান আজাদ, সোহেল সিকদার। এই সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা জসিম উদ্দিন, আমির হোসেন মেম্বার, নুরুল ইসলাম মেম্বার, জকির হোসেন মেম্বার, যুবদল নেতা ইমতিয়াজ হাসান, নাসির উদ্দিন, আব্দুল জব্বার, আব্দুল হাকিম, আমান উল্লাহ, মোহাম্মদ ইউসুফ, উসমান গণি সহ বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদল নেতৃবৃন্দ। আসন্ন মহাসমাবেশ সফল ও সার্থক করতে নেতাকর্মীরা উপজেলার সকল ইউনিয়নে গণসংযোগ, লিফলেট বিতরণ, কর্মীসভা, ইউনিয়ন পর্যায়ে প্রস্তুতি সভা আয়োজনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।