এ.কে.রিফাতঃমহেশখালী

গতকাল ২৯ মে রাত আনুমানিক ১০-৩০ টার সময় পৌরসভার উত্তর ঘোনাপাড়া এলাকা থেকে এলাকাবাসীর সহযোগীতায় পুঠিবিলা দাশিমাঝি পাড়ার মাদক ব্যাবসায়ী সরওয়ার ও শাহ আলমকে পুলিশ আটক করতে সক্ষম হন।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, মহেশখালী পৌরসভার পুঠিবিলা দাশিমাঝি পাড়া এলাকার মৃত আবুল হোছনের পুত্র সরওয়ার(৪০) ও মোঃছফুরের পুত্র শাহ আলম(৩৮) দীর্ঘদিন ধরে পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায় খুচরা ইয়াবা ও মদ বিক্রি আসছিল।

প্রতিদিনের ন্যায় গতকাল ২৯ মে রাত আনুমানিক ১০-৩০ টার সময় কমিউনিটি সেন্টারের দিগীর পাড়ে মাদক ব্যাবসায়ী সরওয়ার ও শাহ আলম বিভিন্নজনের কাছে খুচরা ইয়াবা ও মদ বিক্রি করছিল।এ সময় উত্তর ঘোনাওয়াড়ার কিছু যুবক এলাকাবাসীকে সাথে নিয়ে তাদের প্রথমে নজরে রাখেন পরে মাদক দ্রব্য সহ আটক করতে সক্ষম হয়।

আটক করার পরে পুলিশকে খবর দিলে তাৎক্ষণিক ঘঠনাস্থলে পৌছান এস আই মণিষ সরকারের নেতৃত্বে মহেশখালী থানা পুলিশের একটি টীম।
এসময় ঘটনাস্থলে এলাকাবাসীর উপস্থিতি ছিল চোঁখে পড়ার মত।উপস্থিত এলাকাবাসীর উদ্যেশ্যে এস আই মণিষ সরকার চিহ্নিত মাদক ব্যাবসায়ীদের ধরে পুলিশের হাতে সোপর্দ করার জন্য মহেশখালী থানার পক্ষ থেকে উত্তর ঘোনাপাড়াবাসীকে ধন্যবাদ জানান।তিনি আরও বলেন প্রতিটা এলাকায় যদি এরকম চিহ্নিত মাদক ব্যাবসায়ীদের ধরে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেন তবেই নিজ নিজ এলাকা মাদকমুক্ত হবে। পরে পুলিশ মাদকদ্রব্য সহ উক্ত মাদক ব্যাবসায়ীদের থানায় নিয়ে যায়।

উক্ত মাদক ব্যবসায়ীদের আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হাই। ঘটনার বিষয়ে উনার কাছ থেকে জানতে চাইলে তিনি বলেন রাত আনুমানিক ১০ঃ৩০ টায় পৌরসভার ঘোনাপাড়া এলাকা থেকে দুইজন চিহ্নিত খুচরা মাদক ব্যাবসায়ীকে ১০ পিচ ইয়াবা ও দুই লিটার দেশীয় মদসহ এলাকাবাসী ধরে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেন এবং তাদের বাড়ী পুঠিবিলা দাশিমাঝি পাড়া বলে জানা যায়।বর্তমানে তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট মাদকদ্রব্য আইনে মহেশখালী থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে।